ঢাকাবুধবার , ৪ জানুয়ারি ২০২৩
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ইত্তেফাক সংবাদদাতাকে হত্যার হুমকিদাতা আটক মুছলেকায় মুক্ত

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি |
জানুয়ারি ৪, ২০২৩ ৮:২৮ অপরাহ্ণ । ২৬ জন
Link Copied!
একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি |

সংবাদ প্রকাশের জের ধরে দৈনিক ইত্তেফাকের চরফ্যাশন উপজেলা সংবাদদাতা মিজানুর রহমান নয়নকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি প্রদানকারী শাহিনকে অবশেষে বুধবার দুপুরের পর আটক করেছেন চরফ্যাশন থানা পুলিশ। আটকের পর চরফ্যাশন থানার ওসি’র উপস্থিতিতে উপজেলা পর্যায়ের দুই নেতা অধ্যাপক মনির উদ্দিন চাষী ও মতিন মোল্লার মধ্যস্থতায় তাকে মুছলেকায় মুক্তি দেয়া হয়। এসময় চরফ্যাশনে কর্মরত বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকের সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
জানাগেছে, বৃহস্পতিবার ইউপি নির্বাচন শেষে শুক্রবার দুপুরের পর আমিনাবাদ ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বিজয়ী মেম্বারের কর্মী সমর্থকরা পরাজিত মেম্বারের কর্মী সমর্থকদের বাড়ি ঘরে হামলা ভাংচুর এবং কর্র্মীদের মারধর করে। খবর পেয়ে চরফ্যাশন থানার ওসি’র নের্তৃত্বে এক প্লাটুন পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এসময় পুলিশ নব নির্বাচিত মেম্বারসহ ৩জনকে আটক করে থানায় নেন। এসংবাদ ৩১ ডিসেম্বর দৈনিক ইত্তেফাকে প্রকাশিত হয়। হামলার ঘটনায় জড়িত হিসেবে আমিনাবাদ ৭নম্বর ওয়ার্ডস্থ আলিয়া চৌমহনী এলাকার মো. হোসেন’র ছেলে শাহিনের নাম পত্রিকায় আসায় সোমবার বিকেলে পেশাগত কাজ শেষে ইত্তেফাক সংবাদদাতা মিজানুর রহমান নয়ন আমিনাবাদ ইউনিয়নের তালুকদার চৌমহনী বাজারে পৌছলে তার মটর সাইকেলের গতিরোধ করে তাকে রাস্তায় আটকে মটর সাইকেল থেকে নামানোর চেষ্টা করে এবং হত্যার হুমকি দেয় শাহিন। বিকেলেই মিজান বাদী হয়ে অভিযুক্ত শাহিনকে আসামী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ দায়েরের পর তিন দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি। বুধবার ইত্তেফাকে এসংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর পুলিশ অভিযুক্ত শাহিনকে থানায় নেয়।
চরফ্যাশন থানার ওসি মো. মোরাদ হোসেন জানান, অভিযুক্ত শাহিনকে থানায় এনে বিষয়টির সমঝোতা করা হয়েছে এবং অভিযুক্ত শাহিনের কাছ থেকে ভবিষ্যতে এধরনের কর্মকান্ড করবেনা এশর্তে মুছলেকা রাখা হয়েছে।

error: Content is protected !!