ঢাকাশুক্রবার , ৬ আগস্ট ২০২১
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গণটিকায় অগ্রাধিকার পাবেন যারা

Admin
আগস্ট ৬, ২০২১ ৩:০২ অপরাহ্ণ । ৪৩ জন
Link Copied!
একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বাংলাদেশ জনপদ, নিউজ ডেস্ক :-

করোনার টিকাদানে শৃঙ্খলা আনতে বয়স ও অঞ্চলকে প্রধান্য দিয়ে আগামীকাল শনিবার থেকে দেশের সব ইউনিয়নে শুরু হতে যাচ্ছে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী গণটিকা কার্যক্রম।

শুক্রবার ঢাকার বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান্স এন্ড সার্জন্স (বিসিপিএস) এ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। গণটিকায় কারা অগ্রাধিকার পাবেন তাদের বিষয়েও জানান তিনি।

স্বাস্থ্যের ডিজি বলেন, গণটিকাদান কার্যক্রমে শৃঙ্খলা আনতে বয়োজ্যষ্ঠ (৫০ ঊর্ধ্ব ), শারীরিক প্রতিবন্ধী, পঁচিশোর্ধ্ব বয়স্ক, দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

মহামারীর এমন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সারাবিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশ সরকারও জনগণকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদানের লক্ষ্যে দেশে ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ভ্যাকসিনের বৈশ্বিক অপ্রতুলতা সত্বেও সরকার দেশের আপামর জনসাধারণকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদানে বিষয়ে বন্ধপরিকর বলে জানান তিনি।

খুরশীদ আলম বলেন, ৭ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া দেশব্যাপী করোনার টিকাদান কার্যক্রমে শুরু হবে। এই দিনে ইউনিয়ন, পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনে টিকা কার্যক্রম চলবে।

ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকা কার্যক্রমকে একটি পাইলট প্রকল্প উল্লেখ করে স্বাস্থ্যের ডিজি বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে এক দিনে কত পরিমাণে টিকা দিতে আমরা সক্ষম সেটি দেখতে চাই। প্রাথমিকভাবে ৭ থেকে ১২ আগস্টের মধ্যে ৩২ লাখ মানুষকে টিকার আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।

শনিবার থেকে শুরু হওয়া ছয় দিনব্যাপী করোনাভ্যাকসিন ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে যাদের ভ্যকসিনের আওতায় আনার কথা বলা হচ্ছে তারা হলেন;

১. ২৫ বছর ও তার বেশি বয়সী।

২.অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পঞ্চাশের্ধ্ব বয়স্ক জনগোষ্ঠী, নারী এবং শারীরিক প্রতিবন্ধীগণ

৩. দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের জনগোষ্ঠী

ক্যাম্পেইনে সারাদেশের ৪ হাজার ৬০০টি ইউনিয়নে এক হাজার ৫৪টি পৌরসভার এবং সিটি কর্পোরশেন এলাকার ৪৩৩টি ওয়ার্ডে ৩২ হাজার ৭০৬ জন টিকাদানকারী এবং ৪৮ হাজার ৪৫৯ জন স্বেচ্ছাসেবীর মাধ্যমে একযোগে কোডিড-১৯ টিকা প্রদান করা হবে। ৭ আগস্ট সারাদেশের সকল ইউনিয়ন, পৌরসভা, সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পেইন শুরু হবে।

৮-৯ আগস্ট ইউনিয়নের যেসকল ওয়ার্ডে ৭ তারিখে নিয়মিত টিকাদান কার্যক্রম চালু ছিল সেসকল ওয়ার্ডে এবং পৌরসভার বাদ পড়া ওয়ার্ডে ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম চলবে।

৭ ও ৯ আগস্ট সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম চালু থাকবে ৮-৯ আগস্ট দুর্গম/ প্রত্যন্ত অঞ্চলে কোভিড-১৯ ডাকসিনেশন কার্যক্রম চালু থাকবে .

১০-১২ আগস্ট জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার জনগোষ্ঠীর>৫৫ বছর বয়সী জনগোষ্ঠীর মধ্যে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

উল্লেখ্য চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি তারিখে কুর্মিটোলা হাসপাতাল কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম শুরু হলে, সেই থেকে অদ্যাবধি মোট এক কোটি ৯ হাজার ৯৫৩ জনকে প্রথম এবং ৪৪ লাখ ১৬ হাজার ১৬১ জনকে দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে।

error: Content is protected !!