ঢাকামঙ্গলবার , ১২ অক্টোবর ২০২১
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গোপালগঞ্জে প্রধান শিক্ষককে মারধর ও সাময়িকভাবে বরখাস্ত এবং দোষী সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসারের শাস্তির দাবী মানববন্ধন

দৈনিক বাংলাদেশ জনপদ
অক্টোবর ১২, ২০২১ ১০:৪৩ অপরাহ্ণ । ৩৭ জন
Link Copied!
একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :-

গোপালগঞ্জে ২৮নং উরফি বড়বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোজ কান্তি বিশ্বাসকে মারধর ও সাময়িকভাবে বরখাস্ত এবং দোষী সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার গৌতম কুমার রায়ের শাস্তির দাবী মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি গোপালগঞ্জ শাখা ও কেন্দ্রীয় কমিটি যৌথভাবে এ কর্মসূচী পালন করে।

আজ মঙ্গলবার (১২ অক্টোবার) সকাল ১১টায় শহরের স্থানীয় প্রেসক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সড়কের উপর দাঁড়িয়ে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও নানা শ্রেনী পেশার মানুষ।

মানববন্ধন চলাকালে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি আসমা খানম, বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক শিক্ষা গবেষণা পরিষদ, কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো: সিদ্দিকুর রহমান, শিক্ষক ফরিদা ইয়াসমিন মিশরী বক্তব্য রাখনে।

এসময় বক্তরা বলেন, শিক্ষকদের উপর হামলার ঘটনা কাম্য নয়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রাধান শিক্ষক মনোজ কান্তি বিশ্বাসের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ প্রতাহারসহ দোষী সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার গৌতম কুমার রায়ের শাস্তির দাবী জানানো হয়। এ দাবী মানা না হলে আগামীতে কঠোর কর্মসূচী দেয়ার ঘোষনা দেন শিক্ষকরা।

প্রসঙ্গত, গত ০৩ অক্টোবর গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ২৮নং উরফি বড়বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোজ কান্তি বিশ্বাসকে মারধর করেন সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার গৌতম কুমার রায়। এ ঘটনায় উল্টো ওই বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষক অভিযোগ দিলে কোন তদন্ত ছাড়াই প্রধান শিক্ষক মনোজ কান্তি বিশ্বাসকে সাময়িক বরখাস্ত করে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনন্দ কিশোর সাহা।

এছাড়া ৫ অক্টোবর আবারো ওই শিক্ষককে মারধর করেন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো: মহিদুল আলম মাহাত্তাব খান ও তার লোকজন। পরে তাকে গোপালগঞ্জ ২৫০-শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

error: Content is protected !!