ঢাকাসোমবার , ১১ অক্টোবর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উদাও, থানায় জিডি

দৈনিক বাংলাদেশ জনপদ
অক্টোবর ১১, ২০২১ ১:০৭ পূর্বাহ্ণ । ৫৬ জন
Link Copied!
একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্টাফ রিপোর্টার :-

ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া মডেল থানার পশ্চিম দেবপুর এলাকার মোঃ মিয়া ধনের ছেলে ওমান প্রবাসী মোঃ পারভেজ এর স্ত্রী এক সন্তানের জননী তাহমিনা সুলতানা (২৪) নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে উদাওয়ের অভিযোগ এনে ছাগলনাইয়া মডেল থানায় সাধারণ ডায়রী করেছেন পলাতক তাহমিনার পিতা মোঃ আব্দুল হক । যার নং ২৫৮, তাং ০৬/১০/২০২১ইং।

জিডি সূত্রে জানা যায়, গত ০৫ অক্টোবর রাত ৮ টার সময় কাউকে কিছু না বলে ২ বৎসর ৬ মাসের কন্যা সন্তান সুবাইতাকে নিয়ে পালিয়ে যান প্রবাসী মোঃ পারভেজ এর স্ত্রী তাহমিনা সুলতানা। এসময় তাহমিনার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পান এবং আত্মীয় স্বজন সহ সম্ভাব্য সকল জায়গায় খোজাখোজি করেও তার কোন সন্ধান না পেয়ে অবশেষে থানার স্মরণাপন্ন হন।

তাহমিনা সুলতানা ফেনী জেলা ছাগলনাইয়া মডেল থানার উত্তর মঙ্গলকান্দি এলাকার মোঃ আব্দুল হক এর মেয়ে। তার গায়ের রং ফর্সা, উচ্চতা ৫ ফুট ৩ , শারীরিক গঠন মধ্যম, মুখমন্ডল গোলাকার। সে চলিত ভাষায় কথা বলে।

এ ব্যাপারে প্রবাসী মোঃ পারভেজ বলেন, আমি ওমান থাকতে আমার আর তাহমিনার সম্পর্ক হয় তার পর ৬ বছর রিলেশন থাকার পর ওমান থেকে এসে গত ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই। আমার ঘর আলোকিত করে একটি কন্যা সন্তান আসে। সন্তানের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আমি আবারো ওমানে চাকরি করতে যাই। কিন্তু গত ০৫ আগস্ট রাত ৮ টার সময় আমার ২ বৎসর ৬ মাসের কন্যা সন্তান সুবাইতাকে নিয়ে তার কাছে সংরক্ষিত ৫ ভরি স্বর্ণালংকার এবং নগদ ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে তাহমিনা সুলতানা পালিয়ে যায়। তার সাথে সর্বোচ্চ যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও কোন সন্ধান পাইনি।

error: Content is protected !!