ঢাকারবিবার , ২৩ অক্টোবর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ সেবা দিয়ে প্রমাণ করলেন হারাগাছ মেট্রো থানার ওসি রেজাউল করিম

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর |
অক্টোবর ২৩, ২০২২ ৬:২৭ অপরাহ্ণ । ৩৮ জন
Link Copied!
একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর |

সাফল্যের এক বছর পার করলেন হারাগাছ মেট্রো থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাওসি রেজাউল করিম,
তিনি হারাগাছ মেট্রো থানায় যোগদানের পর থেকে নিজ যোগ্যতা আর দক্ষতার সাথে হারাগাছের সচেতন ও সাধারণ এলাকাবাসীর মন জয় করেছেন।
সেই সাথে একজন সফল ও সৎ ওসি হিসেবে যতটুকু গুণাবলী প্রয়োজন তা তিনি দেখাতে সক্ষম হয়েছেন, দাগী অপরাধীদের অপরাধ মূলক কর্মকান্ডের লাগাম টেনে ধরেছেন হারাগাছ মেট্রো থানার পুলিশ ।
হারাগাছ মেট্রো থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিমের নেতৃত্বে থানার বেশীর ভাগ পুলিশ সদস্যরা অপরাধীদের কঠোর হাতে দমন করছেন।
হারাগাছের প্রতিটি ওয়ার্ডে পুলিশের টহল থাকায় অপরাধমূলক কর্মকান্ড অনেকটাই কমেছে বলে জানান এলাকার বাসিন্দারা আগে অলিতে গলিতে বিভিন্ন অপরাধীরা যখন-তখন অপরাধে লিপ্ত থাকায় অতিষ্ঠ ছিলো এলাকাবাসীরা।
যে সব এলাকায় অপরাধীদের আড্ডা ছিলো সেসব এলাকার অপরাধীদের আখড়ায় ওসি রেজাউল ইসলাম নিজেই অভিযান করেন।
এলাকাবাসী নাম প্রোকাশে অনিচ্ছুক অগ্রযাত্রায় সাংবাদিক কে জানান আগের তুলনায় হারাগাছ এলাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অনেকটাই ভালো। পুলিশের টহল বৃদ্ধি করায় অপরাধীদের আনাগোনা কমেছে।
প্রতিদিন যদি নিয়মিত থানা পুলিশের তৎপরতা থাকে তাহলে অপরাধীরা অপরাধ কর্মকান্ড করতে সুযোগ পাবেনা।
পরোয়ানাভূক্ত দাগী আসামি, মাদক কারবারি , মাদকসেবী এলাকা ছেড়ে দিয়েছিলেন। আবার তার নেতৃত্বে গ্রেপ্তারও হয়েছেন।
হারাগাছে থানার ওসি রেজাউল করিম,২৭ শে ডিসেম্বর ২’হাজার ২১’ইং তারিখে যোগদানের পর থেকে থানা এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী, জুয়া ,চাঁদাবাজ, ছিনতাই
এমন কি পুলিশের চাঁদাবাজি হয়রানি সহ সকল অপরাধ কমে এসেছে। তবে জমচরা ৭ নং ওয়ার্ডের শেষ সীমানা এবং মনে ইউনিয়নের শেষ সীমানায় সহ চওড়া হাট ৭ নং ওয়ার্ডে মাদকের উৎপত্তি বৃদ্ধি ছিলো এতে এনেক টা নিয়ন্ত্রণে এসেছে এবং থানা এলাকায় চুরি,সহ ছিনতাইয়ের মত অপরাধ তার কঠোর হস্তক্ষেপে সহনশীল পর্যায় রয়েছে।
বিভিন্ন অপকর্মে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ায় এলাকাবাসী ওসি রেজাউল করিম এর প্রশংসা করছেন। তবে এক শ্রেনীর লোকজন অপকর্ম করতে না পেরে তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাচ্ছে।
অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন, হারাগাছ মেট্রো বিভিন্ন এলাকা থেকে ইতিমধ্যে অনেক অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হয়েছে।
হারাগাছ মেট্রো থানার পুলিশ এলাকাবাসীকে সেবা প্রদান করার জন্য সব সময় প্রস্তুত। মাদক ব্যবসায়ী, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসীদের ধরতে হারাগাছ মেট্রোয় বিভিন্ন ওয়ার্ডে পুলিশ অভিযান করছে।
হারাগাছে যতদিন আছি ততদিন অপরাধীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করছি। অপরাধী যত বড় প্রভাবশালী হউক অপরাধ করলে ছাড় নাই।
মাননীয় পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে আমি অপরাধীদের বিরুদ্ধে কাজ করতে বদ্ধপরিকর।
মাননীয় পুলিশ সুপার মহোদয় যখন যা বলবেন তখন তা করার জন্য আমি প্রস্তুত আছি।
ওসি রেজাউল করিম আরও বলেন, মাদক ব্যবসায়ী, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসীদের বিষয়ে তথ্য দেওয়ার জন্য হারাগাছবাসীর প্রতি আহবান থাকবে।
পুলিশকে যদি অপরাধীদের বিষয়ে তথ্য দেওয়া হয় তাহলে পুলিশ এসব অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে পারবে। তাহলে এ দেশ একদিন অপরাধ মুক্ত দেশে রুপান্তরিত হবে ইনশাআল্লাহ্

error: Content is protected !!