ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৫ আগস্ট ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাজের বনানীর অফিস ছিল ‘সুন্দরীদের’ আখড়া

Admin
আগস্ট ৫, ২০২১ ৫:৫৬ অপরাহ্ণ । ৩৬৯ জন
Link Copied!
একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্টাফ রিপোর্টারঃ-

র‌্যাবের হাতে আটক হওয়া আলোচিত প্রযোজক ও অভিনেতা নজরুল ইসলাম রাজের বনানীর অফিসে নিয়মিত নারীদের আনাগোনা ছিল। একই সঙ্গে সেখানে পরিচিত মডেল, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশার লোকদেরও যাতায়াত ছিল। রাজের ওই অফিস থেকে প্রায়ই চিৎকার-চেঁচামেচি শোনা যেত। এ কারণে এর আগেও পুলিশ ডেকে তাকে সর্তক করা হয়।

আজ (বৃহস্পতিবার) রাজের অফিসে সরেজমিনে গিয়ে এসব তথ্য জানা গেছে।
জানা গেছে, প্রায় দেড় বছর আগে বনানীর জি ব্লকের ৭ নম্বর রোডের ৪২ নম্বর বাসার পঞ্চম তলায় একটি ফ্ল্যাটে ‘রাজ মাল্টিমিডিয়া’ নামে একটি অফিস খোলা হয়। এটির মালিক নজরুল ইসলাম রাজ। মাসিক ৫৫ হাজার টাকা চুক্তিতে ভাড়া নিয়ে জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অফিসটি উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাসহ অনেক রাজনৈতিক নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এ বাড়িতে বসবাসকারী একজন জানান, ‘প্রতিদিন ৫ম তলায় নারী-পুরুষ প্রবেশ করতেন। অনেক সময় গভীর রাতেও তারা আসতেন। তারা দীর্ঘ সময় এ ফ্ল্যাটে অবস্থান করতেন। ভেতর থেকে অনেক সময় নারীদের চিৎকার শোনা যেত। তবে ভেতরে কী হচ্ছে তা জানা যেত না। জানতে চাইলেও কিছু বলা হতো না। উল্টো ভয়ভীতি দেখানো হতো। এ কারণে পার্শ্ববর্তী ফ্ল্যাটের মালিকরা মিলে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে পুলিশ ডেকে তাদের সর্তক করা হলেও সেসব বন্ধ হয়নি।

ভেতরে যে অসামাজিক কাজ হতো তা গতকাল র‌্যাবের অভিযানের পর জানতে পেরেছেন বলে তিনি জানান।

বাড়ির ম্যানেজার আলি মিয়া জাগো নিউজকে বলেন, ‘রাজ সাহেব গাড়ি নিয়ে প্রতিদিন সকাল-বিকাল আসতেন। অনেক সময় বাইরের অনেক নারী-পুরুষ নিয়ে ফ্ল্যাটে রাত কাটিয়ে সকালে বের হয়ে যেতেন। বাড়ির মধ্যেও অনেক সময় নাটকের শুটিং করতো বলে অন্য ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়া ও ফ্ল্যাটের মালিকরা রাজকে ডেকে সর্তক করেন। তবে তিনি কারো কথা শুনতেন না।

প্রতিদিন অনেক নারী-পুরুষকে আসা যাওয়া করতে দেখলেও ভেতরে কী হতো তা তিনি জানতেন না বলে জানান।

গতকাল (বুধবার) বিকেলে পরীমনির বনানীর বাসায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অভিযানে যায় র‌্যাবের গোয়েন্দা দলের সদস্যরা। তাদের দেখে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লাইভ শুরু করেন পরীমনি। তিনি সেখানে অভিযোগ করেন, তার বাসায় ‘বিভিন্ন পোশাকে’ লোকজন এসে ফ্ল্যাটের দরজা খুলতে বলছেন। কিন্তু তিনি দরজা খুলতে ভয় পাচ্ছেন। এজন্য সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

দীর্ঘ প্রায় ৪ ঘণ্টার অভিযান শেষে রাত ৮টার দিকে তাকে আটক করে র‌্যাব সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় তার বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক জব্দ করার কথা জানায় র‌্যাব।

এরপর রাত সাড়ে আটটার দিকে প্রযোজক ও অভিনেতা নজরুল ইসলাম রাজের বাসায় অভিযান শুরু করে র‌্যাব। পরীমনিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে পাওয়া তথ্যে র‌্যাব ওই অভিযানে যায় বলে জানায়।

প্রায় দুই ঘণ্টার অভিযান শেষে তাকে বনানীর বাসা আটক করে রাত ১০টা ১৫ মিনিটের দিকে নিয়ে যান র‌্যাব সদস্যরা। রাজের বাসা থেকেও মাদক এবং পর্নোগ্রাফি তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধারের কথা জানায় র‌্যাব।

error: Content is protected !!