ঢাকামঙ্গলবার , ১০ জানুয়ারি ২০২৩
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হারাগাছ থানা ভাঙচুরের ঘটনায় গ্রেফতার ৫

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর |
জানুয়ারি ১০, ২০২৩ ১০:২১ অপরাহ্ণ । ২৭ জন
Link Copied!
একাত্তর পোস্ট অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর |

রংপুর মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানা এলাকায় এক ব্যক্তি পুলিশের মারপিটে নিহত হয়েছে এমন অভিযোগে থানা ঘেরাও ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে ২০২১ সালের পহেলা নভেম্বর। ওই মামলায় পুলিশ সোমবার রাতে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন হারাগাছের সারাই আমবাজার এলাকার আবুল হোসেনের পুত্র নাহিদ হাসান, দালালের হাট নয়াটারি এলাকার মৃত আব্দুল মান্নানের পুত্র লাল মিয়া, নতুন বাজার এলাকার মৃত আব্দুস সামাদের পুত্র বাবু মিয়া, সারাই সাহেবপাড়া এলাকার এনামুল ইসলামের ছেলে কাঞ্চন মিয়া ও সাহেব পাড়া এলাকার আবুল কাশেমের পুত্র শুভ। তাদেরকে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, ২০২১ সালের পহেলা নভেম্বর হারাগাছের দালালের হাট নয়াটারি এলাকার শাকাওয়াত হোসেনের পুত্র তাজুল ইসলামকে (৫৫) হারাগাছ থানার পুলিশ আটক করে। এর কিছুক্ষণ পরেই তাজুল ঘটনাস্থলে মারা যান। তাকে পুলিশে পিটিয়ে মেরেছে এমন কথা ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় জনগণ হারাগাছ থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। উত্তেজিত জনগণ এসময় পুলিশের একটি ভ্যান, ৫টি মোটরসাইকেল ও থানার দরজা-জানালার ব্যাপক ভাঙচুর করে।
পরে রংপুর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ বলছে তাজুল মাদকাশক্ত ছিল। সে হেরোইন সেবন ও বিক্রি করত। পুলিশ তাকে আটক করলে সে হার্ট এ্যাটাকে মারা যায়।
এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে একদল লোক থানায় হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। এঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে থানা ভাঙচুরের মামলা করেন। ওই মামলায় ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়।
হারাগাছ থানার ওসি রেজাউল করিম জানান, গ্রেফতারকৃতদের মঙ্গলবার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

error: Content is protected !!